Main Menu

বহিরাগত হামলা এলে পাশে আছি, পাকিস্তানকে আশ্বাস দিল চিন

imageসন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তানের ভূমিকা নিয়ে যখন সরব গোটা বিশ্ব, সে সময় পাকিস্তানের দিকে পূর্ণ সমর্থনের হাত বাড়িয়ে দিল চিন। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কোনও বহিরাগত আক্রমণ হলে সাহায্যের আশ্বাস বার্তাও দেওয়া হয়েছে চিনের তরফে।

গত কয়েকদিন ধরে ভারত-পাক সীমান্ত নিয়ে চরম উত্তেজনা রয়েছে। উরির সেনাছাউনিতে সন্ত্রাসবাদী হামলার পর পাকিস্তানের ভূমিকা নিয়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে আন্তর্জাতিক মহলে। যদিও চিন এখনও কোনও মন্তব্য করেনি। এরই মধ্যে আগ বাড়িয়ে পাকিস্তানের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনার কথা তুলে চিন যে বার্তা দিল, তা যথেষ্টই তাৎপর্যপূর্ণ। লাহৌরে চিনের কনসাল জেনারেল ইউ বোরেনকে উদ্ধৃত করে পাকিস্তানের পঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে দেওয়া হয়েছে। এই বিবৃতিতে বোরেনের যে উদ্ধৃতি প্রকাশ করা হয়েছে তা হল, “কোনও রকম (বহিরাগত) হামলা হলে আমরা পাকিস্তানকে সব রকম সমর্থন দেব।”

এখানেই শেষ নয়, কাশ্মীর ইস্যুতেও পাকিস্তানের অবস্থানকে পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন বোরেন। বলেছেন, “কাশ্মীর ইস্যুতে আমরা পাকিস্তানের পাশে আছি এবং থাকব। নিরস্ত্র কাশ্মীরিদের দমন-পীড়নের এখনও কোনও বিচার হয়নি। কাশ্মীর ইস্যুর সমাধান হওয়া উচিত কাশ্মীরে বাসিন্দাদের ইচ্ছা মেনেই।’’

পাকিস্তানি সংবাদ মাধ্যম সূ্ত্রে জানানো হয়েছে, পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ চিনা কূটনীতিবিদদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলেন। সেই আলোচনায় এই বার্তা দেওয়া হয়েছে বেজিংয়ের পক্ষ থেকে।

নয়াদিল্লি মনে করছে, আসলে ভারতীয় সেনা হামলা করতে পারে বলে আগাম আশঙ্কায় ভুগছে পাকিস্তান। তাই আগেভাগেই গ্রামগুলি খালি করে কৌশলগত অবস্থান নিয়ে যুদ্ধের প্রস্তুতি শুরু করে দিতে চাইছে। চিন নিজে সরকারি ভাবে কিছু এ নিয়ে কিছু বলেনি। কিন্তু চিনের কূটনৈতিক কর্তাকে উদ্ধৃত করে পাকিস্তান পাল্টা চাপ তৈরি করে রাখছে ভারতের উপর, এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।






Related News

Comments are Closed