Main Menu

বরিশালে লঞ্চ ডুবি : শিশুসহ ১৩ জনের লাশ উদ্ধার

2016-09-21_6_116983বরিশাল প্রতিনিধিঃ জেলার বানারীপাড়া উপজেলার সন্ধ্যা নদীতে লঞ্চ ডুবির ঘটনায় নারী ও শিশুসহ ১৩ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।
উদ্ধারকৃত মৃতদেহের মধ্যে ১০ জনের পরিচয় জানা গেছে, তারা হচ্ছেন- সুখ দেব মল্লিক (৩০), রাবেয়া বেগম (৫০), মোজাম্মেল মোল্লা (৬০), রুপা বেগম (২৫), সাগর মীর (২৪), জিরাকাঠী গ্রামের মিলন ঘরামী (৩৫), মশাং গ্রামের শান্তা (৮), রহিমা বেগম (৬৫), কহিনুর বেগম (৪৫) ও অজ্ঞাত (৮) এক শিশু।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বানারীপাড়া লঞ্চঘাট থেকে ৭০ জন যাত্রী নিয়ে এমএল ঐশী-২ নামের একতলা লঞ্চটি উজিরপুরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। দুপুর ১২টার দিকে সন্ধা নদীর সৈয়দকাঠী ইউনিয়নের মজিদবাড়ি এলাকার দাসের হাট উত্তর পাড়ে যাত্রী ওঠানোর সময় নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ে তীব্র স্রোতে লঞ্চটি ডুবে যায়।
জেলা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সহকারী পরিচালক ফারুক হোসেন সিকদার জানান, ডুবে যাওয়া লঞ্চ ও নিখোঁজ যাত্রীদের উদ্ধারের জন্য ডুবুরি দল দুপুর ২টা থেকে কাজ শুরু করেছে। ডুবে যাওয়া লঞ্চ থেকে সাঁতরে তীরে উঠতে সক্ষম হয়েছেন প্রায় ১৫ যাত্রী। এ দুর্ঘটনায় এখনও নিখোঁজ রয়েছেন প্রায় ৪০ যাত্রী।
থানা পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল স্থানীয়দের সহায়তায় উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে দুর্ঘটনায় ডুবে যাওয়া লঞ্চটিকে বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে উদ্ধার করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে বানারীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল আহসান বলেন, এখন পর্যন্ত ২০ জন নিখোঁজ রয়েছে।
খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে ছুটে যান জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বরিশাল-১ আসনের সংসদ সদস্য আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ, বরিশাল-২ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট তালুকদার মোঃ ইউনুস, জেলা প্রশাসক ড. গাজী মো: সাইফুজ্জামান এবং স্থানীয় প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও কর্মচারী ও স্থানীয় জন-প্রতিনিধিরা।






Related News

Comments are Closed