Main Menu

বিছানায় বোল্ট ম্যারাথন রানার, জানালেন তরুণী!

অনলাইন ডেস্ক
Bolt

সদ্য সমাপ্ত রিও অলিম্পিকে নিজেকে আবারও শ্রেষ্ঠ প্রমাণ করেছেন জ্যামাইকান কিংবদন্তি উসাইন বোল্ট। ট্রিপল ট্রিপল জিতিছেন তিনি। আর ট্রাকে যে গতিদানব তার কি মেয়ে বন্ধুর অভাব হয়? বোল্টেরও তাই। গত ২১ আগস্ট গতিদানবের ৩০তম জন্মদিনে রাতে নারীবেষ্টিত ধুন্ধুমার পার্টি শেষে দিনটিকে আরও রঙিন করে দিতে জেডি ডুয়ার্ট নামে রিও’র এক ছাত্রী বোল্টের সঙ্গে থেকেই যান! সেই ছবি হোয়াটস অ্যাপের মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। এ নিয়ে গুঞ্জন না যেতেই লন্ডনে পৌঁছে সহো নাইট ক্লাবে চার নারীর সঙ্গে সারারাত হোটেল চিরাক লি সোরে কাটান বোল্ট। রাতভর সেখানে পার্টি করে পরে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে দুই সুন্দরীর বাহুলগ্না হয়ে হোটেলে ফিরেন তিনি।

এদিকে ব্রাজিলীয় তরুণী জেডির ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ায় তিনি বেশ লজ্জা পেয়েছেন বলে জানান তখন। তবে ছবি ছড়ানোয় লজ্জা পেলেও বোল্ট বিছানায় কেমন তা জানাতে একটুও কুণ্ঠাবোধ করেননি এ তরুণী।

ব্রাজিলের ২০ বছর বয়সি তরুণী জেডি ডুয়ার্ট সেই রাতের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেছেন। তার মতে, বোল্ট ট্র্যাকে গতির সম্রাট হতে পারেন কিন্তু বিছানায় তিনি ম্যারাথন রানার।

ডুয়ার্ট বলছেন, বোল্ট যত দ্রুত সোনা জিততে পারে, তার থেকেও দ্রুতগতিতে নারীদের জিতে নেওয়ার ক্ষমতা রাখে।

শনিবার রাতে বোল্টের সঙ্গে রিওর এক ক্লাবে দেখা হয়েছিল ডুয়ার্টের। তরুণীর খানিক আগেই দাঁড়িয়েছিলেন বোল্ট। ব্রাজিলীয় তরুণীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে যাচ্ছিলেন জ্যামাইকান কিংবদন্তি। হঠাৎই বোল্ট তার শরীর থেকে সরিয়ে ফেলেন জামা। তার বিখ্যাত সিক্স প্যাক তখন দৃশ্যমান। সেই সিক্স প্যাকের আবেদন অগ্রাহ্য করেন কীভাবে ডুয়ার্ট?

বোল্টের সুগঠিত শরীর দেখেই তার প্রেমে পড়ে যান জেডি। তার ভীষণ সুন্দর পেশিবহুল শরীরী সৌন্দর্য ডুয়ার্টকে উন্মাদ করে দেয়। পিছপা না-হয়ে ডুয়ার্ট সটান উঠে বসেন ট্যাক্সিতে।

বোল্ট ও ডুয়ার্টের ট্যাক্সি সোজা ঢুকে যায় অলিম্পিক ভিলেজে। কেউ থামায়নি গাড়ি। কেউ জানতেও চাননি ডুয়ার্টের পরিচয়।

খুব অল্পই কথা হয়েছিল দু’’জনের মধ্যে। যেটুকু কথা হয়েছিল, তাতে ডুয়ার্টের রূপের তারিফ করেন বোল্ট। জ্যামাইকান কিংবদন্তির ভাবগতিক দেখে ডুয়ার্টের বুঝতে সমস্যা হয়নি, বোল্ট ‘শারীরিক সম্পর্ক’ করতে চাইছেন।

কথা খুব কমই হয় দু’জনের। ঘরে ঢুকতেই শুরু হয়ে যায় বোল্ট ও ডুয়ার্টের গভীর ভালোবাসা।

সকালে ডুয়ার্টের হাতে ট্যাক্সির ভাড়াও দিয়ে দেন বোল্ট। প্যারাঅলিম্পিকের সময়ে আবারও তাদের দেখা হবে বলেও জানান বোল্ট।

ডুয়ার্ট বলেছেন, বোল্টকে দুরন্ত দেখতে। বিরাট বড় তারকা। সেই সঙ্গে বোল্ট নির্লজ্জও বটে। সেই রাতের অভিজ্ঞতা দারুণ।

অন্যদিকে সেই জেডি ডুয়ার্টের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি মাদক পাচারকারী ডগলাস ডোনাটোর সাবেক প্রেমিকা। দুটি সন্তানও রয়েছে তার। ২০১৪ সালে পুলিশের গুলিতে নিহত হন ডগলাস। ডুয়ার্ট এ ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।






Related News

Comments are Closed