Main Menu

সাধারণ শিক্ষার্থীদের কর্মসূচিতে যেতে বাধ্য করল ছাত্রলীগ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) মওলানা ভাসানী হলের মূল গেটে তালা ঝুলিয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের কর্মসূচিতে যেতে বাধ্য করেছে সংশ্লিষ্ট হলের স্থগিত কমিটির ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। বুধবার সকাল ৮টার দিকে এই ঘটনা ঘটে বলে সাধারণ শিক্ষার্থী ও হলের নিরাপত্তাকর্মী সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ২০১৪ সালের ২১ আগস্ট রাতে মওলানা ভাসানী হলে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ২৩ জনকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার ও রাষ্ট্রীয় আইনে মামলা করা হয়। তখন থেকেই বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. নূরুন্নবীর নেতৃত্বাধীন গ্রুপ হলের বাইরে অবস্থান করছিল। গত বছরের নভেম্বরের দিকে হাইকোর্টে করা রিটের প্রেক্ষিতে আদালত বিশ্ববিদ্যালয়ের বহিষ্কারাদেশ অবৈধ ঘোষণা করেন। এর প্রেক্ষিতে শাখা ছাত্রলীগের অপর সাংগাঠনিক সম্পাদক মোর্শেদুর রহমান আকন্দের নেতৃত্বাধীন বিরোধী গ্রুপ মামলার বিচার দ্রুত কার্যকর করার দাবি জানিয়ে আসছিল। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার সকাল ১১টায় তারা উপাচার্য বরাবর ‘হামলার বিচার দাবিতে’ স্মারকলিপি প্রদান করে। সাধারণ ছাত্রদেরকে জোরপূর্বক উক্ত কর্মসূচিতে অংশ নিতে বুধবার সকাল ৮টা থেকে মাওলানা ভাসানী হলের মূল ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। ফলে সাধারণ শিক্ষার্থীরা সকাল সাড়ে  ১১টা পর্যন্ত কোন ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেননি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মোর্শেদুর রহমান আকন্দ ঘটনা অস্বীকার করেন। মওলানা ভাসানী হলের প্রাধ্যক্ষ নাজমুল হাসান তালুকদার বলেন, “আমি এখনো হলের দায়িত্ব নেই নি বিধায় এ বিষয়ে কিছু বলতে পারব না।”

সূত্র জানায়, মোর্শেদুর রহমান আকন্দ ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষে ইংরেজী বিভাগে ভর্তি হন। সেই হিসেবে তার ছাত্রত্ব না থাকলেও নিয়মিত হলে থেকে সাধারণ শিক্ষার্থীদের জোরপূর্বক দলীয় বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে অংশ নিতে বাধ্য করছেন।






Related News

Comments are Closed