Main Menu

পার্টি থেকে উদ্ধার ওবামা-কন্যা মালিয়া!

image_(1)রাতভর উদ্দাম পার্টি। প্রতিবেশীদের অভিযোগে হট্টোগোল থামাতে হাজির হল পুলিশ! এমনকী পরিস্থিতি সামলাতে হাজির ‘সিক্রেট সার্ভিস এজেন্ট’রাও। গত সপ্তাহে আমেরিকার ম্যাসাচুসেট্‌সের প্রমোদদ্বীপ মার্থাজ ভিনিয়ার্ডের সেই ঘটনা ঘিরে তোলপাড়। কারণ ওই পার্টি থেকে মাতাল অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছিল প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার বড় মেয়ে মালিয়াকে। মেয়েকে বাড়ি নিয়ে যেতে হাজির হয়েছিলেন স্বয়ং প্রেসিডেন্ট।

সোশ্যাল মিডিয়ায় গতকাল একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, আমেরিকার ‘ফার্স্ট ডটার’ মালিয়াকে ঘিরে ধরে নিয়ে যাচ্ছে নিরাপত্তাবাহিনী। প্রাথমিকভাবে অনেকের ধারণা হয়, কোন সন্ত্রাসবাদী হামলা থেকে ওবামা-কন্যাকে বাঁচানোর চেষ্টা চলছে। পরে জানা যায়, একটি পার্টি থেকে বের করা হচ্ছে মালিয়াকে।  সম্প্রতি ম্যাসাচুসেট‌্‌সের ওই দ্বীপে সপরিবার ছুটি কাটাতে গিয়েছেন প্রেসিডেন্ট। উঠেছেন ওয়েস্ট টিসবেরির বাংলোয়।

ওয়েস্ট টিসবেরি পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে, রাত ৯টা নাগাদ ওই পার্টি শুরু হয়। চলে গভীর রাত পর্যন্ত। পার্টিতে প্রচণ্ড হট্টোগোল হওয়ায় পুলিশে খবর দেন প্রতিবেশীরা। প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তা সচিবকে দ্রুত খবর দেওয়া হয়। নিরাপত্তাবাহিনীর পাশাপাশি মেয়েকে নিতে হাজির হন স্বয়ং ওবামা।

প্রসঙ্গত, আগামী বছর হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটিতে পড়তে যাবেন মালিয়া। তার আগে বন্ধুদের সঙ্গে আনন্দ করতেই ব্যস্ত তিনি। চলতি মাসের শুরুতেই ধূমপানরত (কারও কারও ব্যাখ্যা, মারিজুয়ানা টানছিলেন তিনি) মালিয়ার ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে। সম্প্রতি বন্ধুদের সঙ্গে বোগাতা, কলোম্বিয়ার ‘লোলাপালোজা মিউজিক ফেস্টিভ্যালে’ যান মালিয়া। সেখানেই সম্ভবত ওই ছবি তোলা হয়েছিল।

আমেরিকার একটি ওয়েবসাইট জানিয়েছে, মেয়েকে পার্টি থেকে বের করে আনার পর তার সঙ্গে বেশ কিছুটা রাস্তা হেঁটেই যান প্রেসিডেন্ট। সেই সময় বেশ কিছুক্ষণ কথা হয়েছে দু’জনের।

অনেকেই বলছেন, কিশোরী কন্যার অতিরিক্ত পার্টিতে যাওয়া এবং সেখানে নেশা করার ছবি দেখে চিন্তিত প্রেসিডেন্ট। যদিও সমালোচকদের একাংশের মতে, উদ্বিগ্ন হওয়ার কথা নয় ওবামার। তরুণ বয়সে নেশা করতেন বলে আত্মজীবনীতে স্বীকার করেছেন তিনি।

সূত্র: এবেলা






Related News

Comments are Closed