Main Menu

‘বাংলাদেশি’ কন্যা হিটে প্রথম

অনলাইন ডেস্ক॥গলফে ৫৮তম হয়ে শেষ করেছেন সিদ্দিকুর রহমান। ১৪ আগস্ট তাঁর ইভেন্ট দিয়েই এবারের অলিম্পিক–যাত্রা শেষ হয়েছে বাংলাদেশের। তবে অলিম্পিক ইভেন্ট একেবারেই বাংলাদেশি-শূন্য হয়ে পড়েছে, ভাববেন না! শুক্রবার অলিম্পিক অ্যারেনায় রিদমিক জিমন্যাস্টিকসেই অংশ নিয়েছেন এক ‘বাংলাদেশি’ কন্যা। বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্গারিটা মামুন তাঁর হিটেও হয়েছেন প্রথম।

রিদমিক জিমন্যাস্টিকসে রাশিয়ার হয়ে অংশ নিচ্ছেন মার্গারিটা। নিজের চার ইভেন্ট হুপে ১৮.৮৩৩, বলে ১৯.০০০, ক্লাবে ১৭.৫০০ ও রিবনে ১৯.০৫০—একক অলরাউন্ডে মোট ৭৪.৩৮৩ পয়েন্ট পেয়ে শীর্ষে থেকেই হিট শেষ করেছেন বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়েও এক নম্বরে থাকা রাশিয়ান এই জিমন্যাস্ট। রাশিয়ান লিখতে হচ্ছে। অথচ একটু এদিক-ওদিক হলেই বাংলাদেশের হয়েও অলিম্পিকে অংশ নিতে পারতেন এই জিমন্যাস্ট।

মার্গারিটার জন্ম মস্কোতে। বাবা বাংলাদেশি, মা রাশিয়ান। বাবা আব্দুল্লাহ আল মামুন মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতকোত্তর, মা আনা সাবেক রিদমিক জিমন্যাস্ট। রিদমিক জিমন্যাস্টিকসে তাঁর আসা যে মাকে দেখে, নিশ্চয়ই বোঝা যাচ্ছে। জুনিয়র লেভেল থেকেই বহু আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে খেলছেন। মার্গারিটার জন্য আপনার গর্ব হতে পারে, জুনিয়র লেভেলে কিছুদিন তিনি খেলেছেন বাংলাদেশের হয়েও। সিনিয়র লেভেলে ফিরে যান রাশিয়ায়।

রিদমিক জিমন্যাস্টিকসে বিশ্ব রেকর্ডটা মার্গারিটার অধিকারেই। ২০১৬ বাকু বিশ্বকাপে চারটি ইভেন্টে মোট ৭৭.১৫০ পয়েন্ট পেয়ে করেন এই রেকর্ড। এবার রিও অলিম্পিকে তাঁর শুরুটা হয়েছে দুর্দান্ত। সোনার পদক শেষ পর্যন্ত মার্গারিটার গলায় উঠলে তাতে গর্বিত হতে পারে বাংলাদেশও।






Related News

Comments are Closed