Main Menu

বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া দাউদপুর ডিগ্রী কলেজ ৪৪ বছরেও জাতীয়করণ হয়নি

College picদিনাজপুর প্রতিনিধিঃ দাউদপুর ডিগ্রী কলেজ বাংলাদেশের উত্তর জনপদের একটি প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বাংলার অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় বরেন্দ্র অঞ্চলের সাধারণ মানুষ শিক্ষা-দীক্ষা, সংস্কৃতি, খেলাধুলা ও ব্যবসা – বাণিজ্যে পিছিয়ে ছিল । এ বরেন্দ্র ভূমির বৃহত্তর দক্ষিন দিনাজপুর জেলায় যে কলেজটি শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে সর্বপ্রথম প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল, সেটিই বর্তমানে দাউদপুর ডিগ্রী কলেজ। ১৯৭২ইং সালে বঙ্গবন্ধু রেল যোগে সৈয়দপুর যাবার পথে তৎকালীন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল জলিল মন্ডল এর সাথে বিরামপুর ষ্টেশনে অবস্থানকালে তিনি দাউদপুর কলেজ সম্পর্কে বঙ্গবন্ধুকে অবহিত করেন। বঙ্গবন্ধু এ ভাল উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে তিনি ৭৫ (পঁচাত্তর) বান্ডিল টিন বরাদ্দ দিয়ে কলেজটিকে গ্রামীণ এলাকার লোকজনের জ্ঞান বিকাশে অবদান রাখেন। এঁকে বেঁকে চলা করতোয়া নদীর পশ্চিম তীরে নবাবগঞ্জ উপজেলার দক্ষিন প্রান্তে কোলাহল মুক্ত দাউদপুর বাজারে এক মনোরম পরিবেশে এই কলেজের অবস্থান। উত্তর বঙ্গের দক্ষিন দিনাজপুর এর ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দাউদপুর ডিগ্রী কলেজ ১৯৭২ খ্রিষ্টাব্দে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রেরণায় সোনার বাংলায় শিক্ষা বিস্তারের লক্ষে প্রতিষ্ঠিত হয়ে অদ্যবদি সুনামের সাথে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে। অত্র প্রতিষ্ঠানে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে বিজ্ঞান, মানবিক,বাণিজ্য ও এইচ,এস,সি (বিএম) শাখা ছাড়াও স্নাতক পর্যায়ে বি,এ, বি,এসসি,বি,এস,এস ও বি,বি এস শাখা চালু আছে। প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষা র্কাযক্রমকে আধুনিক ও গতিশীল করার জন্য তথ্য ও প্রযুক্তির ব্যবহার অনস্বীকার্য । অন লাইন কার্যক্রেমের সফল বাস্তবায়নের সুদুর প্রসারী প্রভাব রাখবে । দাউদপুর ডিগ্রী কলেজটিকে জাতীয়করণ করার জন্য অত্র উপজেলার সর্ব স্তরের জনগণ মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছেন। এলাকাবাসীর প্রানের দাবী অতি শীঘ্রই দাউদপুর ডিগ্রী কলেজ কে জাতীয়করণ করার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন।






Related News

Comments are Closed