Main Menu

সিদ্ধিরগঞ্জে যুবলীগের আলোচনা সভায় ওসি সরাফত: ‘পুলিশ জনতা মিলিয়েছে হাত, সন্ত্রাসী জঙ্গীবাদ নিপাত যাক’

1 (Medium)সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবলীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত। গতকাল বুধবার বাদ আসর সুমিলপাড়া নূরে মদীনা দাখিল মাদ্রাসা মাঠে থানা যুবলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মতিউর রহমান মতির সভাপতিত্বে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিহত করার লক্ষ্যে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি(সার্বিক) মু. সরাফত উল্লাহ বলেন, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রকারীরা একত্রিত হয়ে দেশের উন্নয়ণ মুলক কাজ ব্যাহত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তাই তরা হামলা করে পুলিশ সাধারন মানুষ ও বিদেশী নাগরিকদের হত্যা করছে। এই পরিস্থিতিতে এ দেশের আপামর জনতা ও পুলিশ একত্রিত হয়ে সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও মাদক প্রতিহত করতে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তাই আমাদের শ্লোগান একটাই পুলিশ জনতা মিলিয়েছে হাত সন্ত্রাসী জঙ্গীবাদ নিপাত যাক। থানা যুবলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মতিউর রহমান মতির সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন ৬নং ওয়ার্ড এলাকার ২৫টি মসজিদের ইমাম, ৭/৮টি মাদ্রাসার প্রিন্সিপালসহ সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা বাবুল আক্তার, সহ সাধারন সম্পাদক কালিপদ মল্লিক, আঞ্চলিক শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আজিজ, ৬নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মানবাধিকার কর্মী মানিক মাষ্টার, মানবাধিকার কর্মী আশরাফ উদ্দিন, শিমুলপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হোসেন সর্দার, থানা আওয়ামীলীগ সাংস্কৃতিক সম্পাদক হোসেন আলম মেম্বারসহ যুবলীগ কর্মী রাব্বি, ফয়সাল, জসিম, কাদির, এলাকার গন্যমামান্য ব্যাক্তিবর্গসহ ৫শতাধিক এলাকাবাসী।
ওসি মু. সরাফত উল্লাহ আরোও বলেন, এককজন ইমাম হচ্ছেন এক একটি পড়া, মহল্লা ও সমাজের অভিবাবক। ইমামদের প্রতি একটা অনুরোধ প্রতি জুম্মও খোৎবায় অন্তত ২মিনিট সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও মাদেকর কুফল সম্পর্কে বয়ান করবেন। স্কুল কলেজসহ বিভিন্ন শীক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে হঠাৎ করে নিখোঁজ হওয়া শিক্ষার্থীরা ষড়যন্ত্রকারিদের আশ্রয় প্রশ্রয়ে প্রশিক্ষিত হয়ে জঙ্গী রুপ ধারণ করে। তাই আমি সকল অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি আপনারা আপনাদের সন্তানদের প্রতি সজাগ দৃষ্টি রাখবেন। যদি কারও সন্তান নিখোঁজ হয় তাহলে দ্রুত থানায় জানাবেন। আমরা সাথে সাথে ব্যাবস্থা গ্রহণ করবো। এ সময় উপস্থিত ইমাম, মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা তাদের বক্তব্যে বলেন, কোন মুসলমান বোমা মারেনা, মানুষ হত্যা করেনা, ধ্বংসকারী কার্যক্রম পরিচালনা করেনা। যারা এসব করছে তারা ইসলামের শত্রু। তাই জঙ্গি, সন্ত্রাস ও মাদক নির্মূলে আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়েছি। আলোচনা সভার সভাপতির সমাপনি সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মতিউর রহমান মতি বলেন, আমরা কোনো হত্যাকান্ড ও জঙ্গী কার্যক্রম হতে দিবোনা। এটা ইহুদিদের ষড়যন্ত্র মুসলামানদের ধ্বংস করার জন্য অপর মুসলমানদের ভুল বুঝিয়ে এসব কর্মকান্ড চালাচ্ছে তারা। ইহুদি রাষ্ট্র ইসরাইলে বোমা হামলা হয়না। জঙ্গীদের ব্যবহৃত অত্যাধুনিক অস্ত্র আমেরিকার তৈরী। এই গভির ষড়যন্ত্র থেকে আমাদের বের হয়ে হয়ে আসতে হবে। সকলকে একত্রিতভুত হয়ে এদেরকে প্রতিহত হবে। আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশে প্রতিটি পাড়ায় মহল্লায় জঙ্গি প্রতিরোধ কমিটি গঠন করা। নারায়ণগঞ্জের প্রান পুরুষ আওয়ামীলীগের কর্ণধার জননেতা আলহাজ্ব শামীম ওসমান এমপির নির্দেশে জঙ্গি প্রতিহত করতে আমরা আজ সকলে মিলিত হয়েছি। ইনশাআল্লাহ শামীম ওসমানের নেতৃত্বে সকল জঙ্গি, সন্ত্রাসী ও মাদক সন্ত্রাসীদের স্বমূলে উপড়ে ফেলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলব আমরাই।সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবলীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত। গতকাল বুধবার বাদ আসর সুমিলপাড়া নূরে মদীনা দাখিল মাদ্রাসা মাঠে থানা যুবলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মতিউর রহমান মতির সভাপতিত্বে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিহত করার লক্ষ্যে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি(সার্বিক) মু. সরাফত উল্লাহ বলেন, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রকারীরা একত্রিত হয়ে দেশের উন্নয়ণ মুলক কাজ ব্যাহত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তাই তরা হামলা করে পুলিশ সাধারন মানুষ ও বিদেশী নাগরিকদের হত্যা করছে। এই পরিস্থিতিতে এ দেশের আপামর জনতা ও পুলিশ একত্রিত হয়ে সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও মাদক প্রতিহত করতে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তাই আমাদের শ্লোগান একটাই পুলিশ জনতা মিলিয়েছে হাত সন্ত্রাসী জঙ্গীবাদ নিপাত যাক। থানা যুবলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মতিউর রহমান মতির সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন ৬নং ওয়ার্ড এলাকার ২৫টি মসজিদের ইমাম, ৭/৮টি মাদ্রাসার প্রিন্সিপালসহ সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা বাবুল আক্তার, সহ সাধারন সম্পাদক কালিপদ মল্লিক, আঞ্চলিক শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আজিজ, ৬নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মানবাধিকার কর্মী মানিক মাষ্টার, মানবাধিকার কর্মী আশরাফ উদ্দিন, শিমুলপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হোসেন সর্দার, থানা আওয়ামীলীগ সাংস্কৃতিক সম্পাদক হোসেন আলম মেম্বারসহ যুবলীগ কর্মী রাব্বি, ফয়সাল, জসিম, কাদির, এলাকার গন্যমামান্য ব্যাক্তিবর্গসহ ৫শতাধিক এলাকাবাসী।
ওসি মু. সরাফত উল্লাহ আরোও বলেন, এককজন ইমাম হচ্ছেন এক একটি পড়া, মহল্লা ও সমাজের অভিবাবক। ইমামদের প্রতি একটা অনুরোধ প্রতি জুম্মও খোৎবায় অন্তত ২মিনিট সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও মাদেকর কুফল সম্পর্কে বয়ান করবেন। স্কুল কলেজসহ বিভিন্ন শীক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে হঠাৎ করে নিখোঁজ হওয়া শিক্ষার্থীরা ষড়যন্ত্রকারিদের আশ্রয় প্রশ্রয়ে প্রশিক্ষিত হয়ে জঙ্গী রুপ ধারণ করে। তাই আমি সকল অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি আপনারা আপনাদের সন্তানদের প্রতি সজাগ দৃষ্টি রাখবেন। যদি কারও সন্তান নিখোঁজ হয় তাহলে দ্রুত থানায় জানাবেন। আমরা সাথে সাথে ব্যাবস্থা গ্রহণ করবো। এ সময় উপস্থিত ইমাম, মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা তাদের বক্তব্যে বলেন, কোন মুসলমান বোমা মারেনা, মানুষ হত্যা করেনা, ধ্বংসকারী কার্যক্রম পরিচালনা করেনা। যারা এসব করছে তারা ইসলামের শত্রু। তাই জঙ্গি, সন্ত্রাস ও মাদক নির্মূলে আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়েছি। আলোচনা সভার সভাপতির সমাপনি সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মতিউর রহমান মতি বলেন, আমরা কোনো হত্যাকান্ড ও জঙ্গী কার্যক্রম হতে দিবোনা। এটা ইহুদিদের ষড়যন্ত্র মুসলামানদের ধ্বংস করার জন্য অপর মুসলমানদের ভুল বুঝিয়ে এসব কর্মকান্ড চালাচ্ছে তারা। ইহুদি রাষ্ট্র ইসরাইলে বোমা হামলা হয়না। জঙ্গীদের ব্যবহৃত অত্যাধুনিক অস্ত্র আমেরিকার তৈরী। এই গভির ষড়যন্ত্র থেকে আমাদের বের হয়ে হয়ে আসতে হবে। সকলকে একত্রিতভুত হয়ে এদেরকে প্রতিহত হবে। আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশে প্রতিটি পাড়ায় মহল্লায় জঙ্গি প্রতিরোধ কমিটি গঠন করা। নারায়ণগঞ্জের প্রান পুরুষ আওয়ামীলীগের কর্ণধার জননেতা আলহাজ্ব শামীম ওসমান এমপির নির্দেশে জঙ্গি প্রতিহত করতে আমরা আজ সকলে মিলিত হয়েছি। ইনশাআল্লাহ শামীম ওসমানের নেতৃত্বে সকল জঙ্গি, সন্ত্রাসী ও মাদক সন্ত্রাসীদের স্বমূলে উপড়ে ফেলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলব আমরাই।






Related News

Comments are Closed