Main Menu

সোনারগাঁয়ে বাবার খুনিদের শান্তির দাবিতে মানববন্ধনে শিশুদের কান্না

Sonargaon Photo --4সংবাদদাতা, সোনারগাঁ, নারায়ণগঞ্জ, ॥ সোনারগাঁ উপজেলার সুখেরটেক এলাকায় ব্যবসায়ী রুহুল জামিল হত্যারকারীদের অবিলম্বে চিহিৃত করে গ্রেফতারের দাবি জানালেন চোখের কান্নায় তার দুই শিশু। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ঘন্টা ব্যাপি মানববন্ধনে এ দাবি জানান তারা। নিহতের চার বছরের শিশু কন্যা ফাজিয়া আফসানা ইনাম ও এক বছরের সারা জামিল সিফা তার বাবার হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে গ্রামবাসীদের সাথে এ কর্মসূচিতে অংশ গ্রহন করে।
সুখেরটেক জনতাবাজার এলাকার মানববন্ধনে অংশ নেন কাঁচপুর ইউনিয়ণ পরিষদের সদস্য আবুল হোসেন, নারী সদস্য মোর্শেদা বেগম, ব্যবসায়ী শাহ জালাল মুন্সী, নিহতের বড় ভাই রুহুল ইসলামসহ সুখেরটেক, বাঘরী, ললাটি সহ পাচঁ গ্রামের কয়েক শত নারী পুরুষ।
মানববন্ধনে বক্তরা বলেন, গত বছরের ২৬ জানুয়ারী উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের সুখেরটেক গ্রামের মৃত আ: মালেকের ছেলে ব্যবসায়ী রুহুল জামিল শ্বশুর বাড়ির উদ্দেশ্যে কাঁচপুরে রওনা হয়। পরের দিন মহাসড়কের পাশে এলাকাবাসী একটি লাশ দেখতে পায়। পুলিশ খবর পেয়ে মহাসড়কের পাশ থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে।
নিহত ব্যবসায়ী রুহুল জামিল হত্যার ঘটনায় তার মা রওশন বানু ওই এলাকার আমাজাদ হোসেন, রফিকুল ইসলাম, রাশেল মিয়া, আবুল কালাম, কুদরাত আলী, লালমিয়া ও অজ্ঞাত আসামীদের নামে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামিরা জামিনে এসে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য বাদি ও তার পরিবারের সদস্যদের প্রতিনিয়ত হুমকি দিয়ে আসছে। মামলা তুলে না নিলে তাদেরও রুহুল জামিলের মতো পরিনতি বরন করতে হবে।
নিহতের বৃদ্ধ মা রওশন বানু জানান, কি অপরাধ করেছিল আমার ছেলে তাকে কেন হত্যাকরা হলো? হত্যাকারীদের চিহিৃত করে এখনো পর্যন্ত পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি। এ কথা বলে তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। তিনি আরও বলেন আমার ছেলের হত্যা কারীরা মামলা তুলে নিতে হুমকি দিচ্ছে।
নিহতের স্ত্রী সালামা আক্তার নিঝুম বলেন, আমার স্বামী রুহুল আমিনকে যারা হত্যা করেছে তাদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।






Related News

Comments are Closed