Main Menu

চাঁদপুর বিষ্ণুদীতে মাদ্রাসা রোড়ে মাদক সেবন বাধা কন্দ্রে করে আত্তগোপন ॥ শ্বাসরোদ্বে মেরে ফেলার চেষ্ঠা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ চাঁদপুর বিষ্ণুদীতে মাদ্রাসা রোড়ে মাদক সেবন বাধা বড়ভাই দেওয়া তার পেক্ষিতে ছোট ভাইকে আত্ত গোপন ও শ্বাসরোদ্বে মেরে ফেলার চেষ্ঠার অবিযোক উঠে। ঘটনাটি ঘটে গত ২২জানুয়ারী বিকাল ৫.৩০ মিনিটের বাগড়া বাজার বটতলায় এলাকায়। গত ১৮ খিঃ বিকেল ৩টা চাঁদপুর পৌরসভার বিষ্ণুদীতে মাদ্রাসা রোড়ে ১২ নং ওয়াডের খোরশেদ গাজরি বড় ছেলে রিপন গাজী (২৮) একই এলাকার শাহ্ আলমের ছেলে শাহাদাত(২০) মাদক সেবন করার সময় রাস্তার পাশে এলাকার নিরব মাঠে সামনে দিয়ে হেটে গেলে মাদকের দুরগন্ধ পেয়ে রিপন গাজী তাকে বলে এখান থেকে গিয়ে অন্য দিকে গিয়ে খাও। তা বলার পড় তাকে অনেক মারদোর করা হয়। সে অনুপাতে তার ছাট ভাই উজ্জল ফানিচারের মালিক উজ্জল গাজী (২৫)আসলে তাকে হুমকী দিয়ে দেয় বলে আমি তোমার ফানিচারের দোকান ও তোদের বসত ঘর জালিয়ে দে সে ঘটনা তার বাবা শাহ্ আলম কে আমরা জানালে সে আর তার ছেলে মিলে লাঠি সোঠা দিলে নীলা ফুলা জখম করে । তার ভয়ে এসে পড়ে, সেই সুত্রপাতে গত ২২খিঃ শুক্রবার বিকেলে ৪টা রিপনের ছোট ভাই উজ্জল ফানিচারের মালিক মোঃ উজ্জল গাজী (২৫)কে অপরিচিত নাম্বার দিয়ে
শাহাদাত কল করে বলে আমার বোনের ফানিচার লাগবে সে তার কথা সোনে আর বলে তাকে বাগড়া বাজার বটতলার সামনে যেতে । পরে সে বিকাল ৫.৩০মিনিটে স্থানে গেলে শাহদাতের সহ তার বাড়াটে সন্তাসী ৩ থেকে৪ জন তাকে এক বসত সামনে গেলে দু হাত বেধে এলো পাতারী বাশ লাঠী পিটিয়ে নিলাফুলা জখম করে । কমর থেকে বারমীস চাপাতী বের করতে দেখলে চিৎকার করলে তারা তার গলা চেপে শ্বাস রোধ মেরে ফেলার চেষ্ঠা করে সাথে থাকা নদগ ১৫ হাজার টাকা একটি মোবাইল সেট নিয়ে যায়। সে গলা থেকে হাত সরিয়ে চিৎকার চেচা মেসিতে বটতলার এলাকাবাসী তাদের দাওয়া করলে সন্তাসীরা পালিয়ে যায় । সেখান থেকে উদ্দার করে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠিয়ে দেয়। এব্যাপারে চাঁদপর মডেল থানায় একটি অবিযোগ ২২-০১-১৬ খিঃ দায়ের করা হয়।






Related News

Comments are Closed