Main Menu

লরি-নসিমন সংঘর্ষে সাত স্বজনসহ নিহত ৮

তেলবাহী লরির সঙ্গে সংঘর্ষে এই নসিমনে থাকা আটজন নিহত হয়েছেন। ছবি: এনামুল হকসিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার গাড়াদহ বাসস্ট্যান্ডের কাছে তেলবাহী লরি ও নসিমনের সংঘর্ষে নিহত ব্যক্তির সংখ্যা বেড়ে আটজনে পৌঁছেছে। নসিমনের চালক বাদে নিহত ব্যক্তিরা পরস্পর স্বজন। আজ মঙ্গলবার ভোর ছয়টার দিকে নগরবাড়ী-বগুড়া মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
সংঘর্ষের পর ঘটনাস্থলে পাঁচজন নিহত হন। পরে হাসপাতালে আরও তিনজনের মৃত্যু হয়। ঘটনাস্থলে নিহত পাঁচজন হলেন নসিমনের যাত্রী অজুফা (৬০), অঞ্জনা (২৫), মকবেল (৪০), বন্যা (১০) ও নসিমনের চালক সোবাহান (৩৫)। শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়া ব্যক্তিরা হলেন জালাল (৪০), রেণু (৩৫) ও ফিরোজা (২৭)।
নিহত রেণুর স্বামী তারা মিয়া বলেন, নসিমনের চালক বাদে নিহত সাতজন পরস্পরের ঘনিষ্ঠ আত্মীয়। সম্পর্কে তাঁরা চাচাতো ভাইবোন। সবাই একসঙ্গে থাকতেন।
দুর্ঘটনায় ১০-১২ জন আহত হয়েছেন। তাঁরা শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। হতাহত ব্যক্তিরা সবাই নসিমনের যাত্রী বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নার্স (ইনচার্জ) আবদুল লতিফ হাসপাতালে তিনজনের মৃত্যুর খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আহত ব্যক্তিদের মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীদের তথ্যমতে, নসিমনটি শাহজাদপুর থেকে উল্লাপাড়া রেলস্টেশনের দিকে যাচ্ছিল। তেলবাহী লরিটি বগুড়া থেকে বাঘাবাড়ীর দিকে যাচ্ছিল। গাড়াদহ বাসস্ট্যান্ডের কাছে সংঘর্ষ হয়। এতে তেলবাহী লরিটি রাস্তার একপাশে পড়ে যায়।

সিরাজগঞ্জে দুর্ঘটনা কবলিত তেলবাহী লরি। ছবি: এনামুল হকহাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল কাদের জিলানি ও ফায়ার ব্রিগেডের সহকারী পরিচালক নিজামউদ্দিন তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। ওসি বলেন, লরিটির সামনের চাকা ফেটে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে তিনি জানান।
জেলা প্রশাসক বিল্লাল হোসেন, পুলিশ সুপার মিরাজউদ্দিন আহমেদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শামীম আহমেদ ও পুলিশের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহত ব্যক্তিদের প্রত্যেকের পরিবারকে ১০ হাজার টাকা করে দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। আহত ব্যক্তিদের চিকিৎসার খরচ বহন করবে জেলা প্রশাসন।






Related News

Comments are Closed