Main Menu

সিরাজগঞ্জে বিদ্যুতায়ন প্রকল্পের কাজ বন্ধ

news-10সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি- সিরাজগঞ্জে বিদ্যুতায়ন প্রকল্পের ১৫ ভাগ কাজ শেষ হওয়ার পর তা গুটিয়ে নেয়া হয়েছে। ফলে বিদ্যুতায়নের আওতায় ‘১০ শহর’ উন্নয়ন প্রকল্পের ভবিষ্যত্ নিয়ে আশঙ্কার সৃষ্টি হয়েছে। শহর ও সদর থানায় কৃষি, শিল্পায়নসহ আবাসিক সংযোগ দেয়ার কাজও প্রায় বন্ধ। বিদ্যুত্ সংযোগের জন্য প্রকল্প কর্মকর্তা বরাবর মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যের ডিও লেটার ও সুপারিশে কোনো কাজ হচ্ছে না বলে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, সিরাজগঞ্জে বিদ্যুতায়ন প্রকল্পের আওতায় ১০ বছর আগে ‘১০ শহর’ প্রকল্পের কাজ শুরু হয়। এ প্রকল্পে পৌর এলাকাসহ সদর থানার প্রতিটি গ্রামে সংরক্ষণ ও মেরামতের কাজসহ নতুন বিদ্যুত্ লাইন নির্মাণ করার কথা। এ প্রকল্প ঘোষণার পর অনেক উদ্যোক্তা নতুন নতুন শিল্পায়নে উত্সাহিত হন। তারা বিদ্যুত্ সংযোগের জন্য আবেদন করেন। অনেক চাষী কৃষি খামারে সংযোগ পেতে আবেদন করেন। আবাসিক খাতেও সংযোগের জন্য আবেদন করা হয়। কিন্তু সম্প্রতি ওই প্রকল্পের কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

এতে জেলার কৃষি, শিল্প ও আবাসিক খাতে যে গতিচাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছিল, তা থমকে গেছে। একই সঙ্গে উন্নয়ন ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। প্রকল্প পরিচালক মন্ত্রী ও এমপির সুপারিশকে ফাইলবন্দি করে প্রকল্পের কাজ অসমাপ্ত রেখে চলে গেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। আর যারা এ প্রকল্পের আওতায় নতুনভাবে বিদ্যুত্ সংযোগ পাওয়ার জন্য আবেদন করে ছিলেন, তাদের মধ্যেও ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। প্রকল্পের এক সূত্রে বলা হয়েছে, স্থানীয় কিছু সমস্যার কারণে প্রায় ১৫ ভাগ কাজ শেষ করার পর প্রকল্পটি গুটিয়ে নেয়া হয়েছে। এ দিকে সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী সদর উপজেলার শিয়ালকোলে শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। কিন্তু এ প্রকল্প বন্ধ হওয়ায় মেডিকেল কলেজে বিদ্যুতায়ন নিয়ে অনিশ্চিয়তা দেখা দিয়েছে। মুলিবাড়ীতে প্রস্তাবিত বিসিক শিল্পপার্ক, সদ্য নির্মিত মেরিন অ্যাকাডেমিসহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায়ও বিদ্যুতায়ন অনিশ্চিত হয়ে পড়বে বলে অনেকে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, এ বিষয়টি অনুধাবন করে এক বছর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ও সিরাজগঞ্জ সদর আসনের সংসদ সদস্য হাবিবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে ‘১০ শহর’ প্রকল্পে বিদ্যুতায়নের জন্য ডিও লেটার দিয়েছিলেন। এর পরও কোনো ফল হয়নি বলে জানা গেছে। সিরাজগঞ্জ স্বার্থরক্ষা সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক ডা. জহুরুল হক রাজা জানান, জেলায় শিল্প স্থাপনসহ সার্বিক উন্নয়নে বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। ‘১০ শহর’ উন্নয়ন প্রকল্পটি বিদ্যুিনর্ভর। এখন এ প্রকল্প বন্ধ হয়ে গেলে জেলার সার্বিক উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। জেলা বাসদের সমন্বয়ক নবকুমার কর্মকার জানান, এ প্রকল্প শুরু হলে সদরের শিয়ালকোল, শ্যামপুর, সয়দাবাদ, শারটিয়া, গাছাবাড়ি, বহুলী, আলমপুরসহ শহরতলির বিভিন্ন গ্রামের কৃষক, আবাসিক, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে বিদ্যুত্ সংযোগের জন্য কয়েকশ আবেদন পড়েছে।

ফলে ১০ শহর বিদ্যুতায়নের কাজ বন্ধ করা হলে সামগ্রিক উন্নয়নই বাধাগ্রস্ত হবে। ‘১০ শহর’ বিদ্যুতায়ন প্রকল্পের পরিচালক মোয়াজ্জেম হোসেন দেওয়ান জানান, প্রকল্পটি চালু রাখার জন্য মন্ত্রী ও এমপিদের সুপারিশ পেয়েছি। মেয়াদ শেষ হয়েছে বলেই প্রকল্প গুটিয়ে নেয়া হয়েছে। তবে  মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য প্রস্তাব করা হয়েছে, তা হলে পুনরায় কাজ শুরু করা হবে বলে তিনি জানান।






Related News

Comments are Closed