ফাহিমার হ্যাটট্রিকে সেমিতে বাংলাদেশের মেয়েরা

আইসিসি নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের ম্যাচে মঙ্গলবার হ্যাটট্রিক করেছেন বাংলাদেশের লেগস্পিনার ফাহিমা খাতুন। চার ওভার বল করে আট রান দিয়ে চারটি উইকেট শিকার করেন তিনি। বাংলাদেশের প্রথম নারী বোলার হিসাবে টি-টোয়েন্টিতে হ্যাটট্রিক করলেন ফাহিমা খাতুন।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে এই ম্যাচটিতে বাংলাদেশ জয় পেয়েছে আট উইকেটে। এই জয়ের ফলে ‘এ’ গ্রুপ থেকে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিফাইনালে উঠে গেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। গ্রুপ পর্বের তিনটি ম্যাচ খেলে তিনটিতেই জয় পেয়েছে সালমা খাতুনের দল। সেমিফাইনালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড।

মঙ্গলবার নেদারল্যান্ডসের স্পোর্টপার্ক মারশাকেরওয়ের্ডে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ১৬.২ ওভারে ৩৯ রানে অলআউট হয়ে যায় সংযুক্ত আরব আমিরাত। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৮ রান করেন ওপেনার এশা রোহিত। বাকিদের কেউই দুই অঙ্কের ঘর স্পর্শ করতে পারেননি। শূন্য রানে আউট হয়েছেন পাঁচজন।

বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে হ্যাটট্রিক করেন ফাহিমা খাতুন। তিনি মোট চারটি উইকেট শিকার করেন। ১৩তম ওভারের চতুর্থ বলে উদেনি দোনা, পঞ্চম বলে এশা রোহিত ও ষষ্ঠ বলে কাভিশা এগোদাগেকে সাজঘরে ফেরান তিনি। এছাড়া রুমানা আহমেদ দুই ওভার বল করে চার রান দিয়ে দুইটি উইকেট শিকার করেন। ২.২ ওভার বল করে দুই রান দিয়ে দুইটি উইকেট শিকার করেন নাহিদা আক্তার।

পরে বাংলাদেশ ব্যাট করতে নেমে ৬.৫ ওভারে দুই উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয়। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২১ রান করে অপরাজিত থাকেন নিগার সুলতানা। ১৫ রান করেন সানজিদা ইসলাম। সংযুক্ত আরব আমিরাতের বোলারদের মধ্যে সুভা শ্রীনিভাসন ১টি ও নিশা আলী ১টি করে উইকেট শিকার করেন। প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন ফাহিমা খাতুন।

আগামী নভেম্বরে ওয়েস্ট ইন্ডিজে অনুষ্ঠিত হবে আইসিসি নারী বিশ্বকাপের ষষ্ঠ আসর। টুর্নামেন্টে মোট দশটি দল অংশ নিবে। বিশ্বকাপের জন্য আগে থেকেই আটটি দল নির্ধারিত হয়ে আছে। এই বাছাইপর্ব থেকে সেরা দুইটি দল বিশ্বকাপে অংশ নেয়ার সুযোগ পাবে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

সংযুক্ত আরব আমিরাত নারী দল: ৩৯ (১৬.২ ওভার)

বাংলাদেশ নারী দল: ৪০/২ (৬.৫ ওভার)






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.