রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব দেয়নি মিয়ানমার

রোহিঙ্গাদের ফেরত নেয়ার বিষয়ে মিয়ানমারের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার বক্তব্যকে খুব একটা গুরুত্ব দিচ্ছে না বাংলাদেশ। এ ব্যাপারে দেশটি আনুষ্ঠানিক কোনো প্রস্তাব দেয়নি বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক।

অন্যদিকে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রোহিঙ্গাদের স্বেচ্ছায় ফিরত পাঠাতে হলে নাগরিকত্ব আইন সংশোধনের বিষয়ে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বজায় রাখতে হবে।

নির্যাতনের মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা ৭ লাখ রোহিঙ্গা স্বেচ্ছায় ফিরতে চাইলে তাদের সবাইকে নিতে রাজি মিয়ানমার। সিঙ্গাপুরে শনিবার আঞ্চলিক নিরাপত্তা সম্মেলনে এ কথা জানান মিয়ানমারের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা থং তুন।

তবে এই বক্তব্যে খুব একটা আশাবাদি হতে পারছে না ঢাকা। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে মিয়ানমার পুরোনো কৌশলই নিচ্ছে বলে মনে করছে বাংলাদেশ। বিষয়টি নিয়ে নেপিদো আনুষ্ঠানিকভাবে ঢাকাকে কিছু জানায়নি বলেও মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক।

রোহিঙ্গাদের ফেরত নেয়া বিষয়ে মিয়ানমার আন্তরিক নয় বলে মনে করছেন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশ্লেষকেরা। তারা বলছেন আন্তর্জাতিক মহলকে বিভ্রান্ত করতে নেপিদো বিভিন্ন সময়ে নানা বক্তব্য দিচ্ছে।

রোহিঙ্গাদের স্বেচ্ছায় প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করতে রাখাইনে জাতিগত নিধনে জড়িতদের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে বিচার নিশ্চিতের ওপর জোর দিচ্ছেন বিশ্লেষকেরা। কফি আনান কমিশনের প্রতিবেদন বাস্তবায়নের তাগিদও দিয়েছেন তারা।






Related News

Comments are Closed