সিগন্যাল বিভ্রাটে’ দুর্ঘটনা, স্টেশন মাস্টার পলাতক

সিগন্যাল বিভ্রাটের কারণে গাজীপুরের টঙ্গীতে ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে পাঁচজন নিহতের ঘটনা ঘটেছে বলে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রাথমিকভাবে জানানো হয়েছে।

রোববার দুপুরে এ ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছেন টঙ্গীর রেলওয়ে জংশনের স্টেশন মাস্টার।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে রেলমন্ত্রী মজিবুল হক জানিয়েছেন, এ দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখতে রেলওয়ের প্রধান প্রকৌশলীকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তিন দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

এ ছাড়া নিহতদের পরিবারের সদস্যদের যথাযথ ক্ষতিপূরণ এবং আহতদের চিকিৎসায় খরচ বহন করা হবে বলেও জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী।

দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে টঙ্গীর নতুন বাজার এলাকায় ঢাকা-জয়দেবপুর রেললাইনে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন উদ্ধার কাজের দায়িত্বে থাকা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের টঙ্গীর স্টেশন কর্মকর্তা আতিকুর রহমান।

ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা বলেন, ‘জামালপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী জামালপুর কমিউটার ট্রেন টঙ্গীর নতুনবাজার এলাকায় পৌঁছালে পেছনের পাঁচটি বগি লাইনচ্যুত হয়। এ সময় ঘটনাস্থলেই কাটা পড়ে চারজন মারা যান। আহত হন কমপক্ষে ৩০ জন।’

এ দুর্ঘটনার পর উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকার যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসা জেলা পুলিশ সুপার হারুনুর রশিদ বলেন, ‘জামালপুর থেকে আসা জামালপুর কমিউটার ট্রেনটি ঢাকার দিকে যাচ্ছিল। সেটি টঙ্গী স্টেশন পার হওয়ার পর দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। কারণ, জামালপুর কমিউটার ট্রেনটি যে লাইনে যাচ্ছিল, ঠিক একই লাইনে আরেকটি ট্রেন ঢাকা থেকে টঙ্গীর দিকে আসছিল। তখন কমিউটার ট্রেনের চালককে লাইন পরিবর্তনের জন্য বার্তা দেওয়া হয়। দ্রুত লাইন পরিবর্তন করতে গিয়েই ট্রেনটির পেছনের দুটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে পড়ে। সিগন্যাল বিভ্রাটের কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। দুর্ঘটনার পর থেকেই টঙ্গীর স্টেশন মাস্টার পলাতক রয়েছেন।’






Related News

Comments are Closed