মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের  দাবিতে আশুলিয়া প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে মানববন্ধন ও  বিক্ষোভ  সমাবেশ

মোঃ আরিফ হোসেনঃ আশুলিয়া প্রতিনিধিঃ চ্যানেল নাইনের বার্তা প্রধান আমীনুর রশীদ ও ঢাকা জেলা প্রতিনিধি অপু খন্দকারের বিরুদ্ধে ঢাকা-২০ আসনের সাংসদ এম এ মালেকের স্ত্রী মীনা মালেকের করা হয়রানীমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে রবিবার (১৪ই জানুয়ারি) দুপুরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ পালন করেছে সাভার, আশুলিয়া ও ধামরাইয়ে কর্মরত সংবাদকর্মীরা।

রবিবার  (১৪ই জানুয়ারি) দুপুরে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের  আশুলিয়া প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে  ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরে আশুলিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাহ্ফুজুর রহমান নিপুর সঞ্চালনায় আশুলিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মোজাফফর হোসাইন জয়ের সভাপতিত্বে আশুলিয়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে সাংবাদিক নের্তৃবৃন্দ ঢাকা-২০ আসনের সাংসদ এমএ মালেকের দৃষ্টি আকর্ষন করে চ্যানেল নাইনের বার্তা প্রধান আমিনুর রশীদ ও জেলা প্রতিনিধি অপু খন্দকারের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানান।

আশুলিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মোজাফ্ফর হোসাইন জয় সরকার ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যদের দৃষ্টি আকর্ষন করে দায়ের করা মিথ্যা মামলা ও দলের নাম ভাঙ্গিয়ে অতি উৎসাহিত ব্যক্তিদের কর্মকান্ডের বিষয়ে খোজ নেয়ার অনুরোধ জানান। পাশাপাশি সংবাদ কর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলাটি প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে মাসব্যাপী কর্মসূচী ঘোষনা করেন। অন্যথায় আশুলিয়া প্রেসক্লাবের উদ্যোগে দেশব্যাপী বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলার হুশিয়ারি উচ্চারন করেন।

কর্মসূচীতে আশুলিয়া প্রেস ক্লাবের সকল সংবাদকর্মী, জেলা টেলিভিশন জার্নালিষ্ট ইউনিট, ও আশুলিয়া ফার্মেসী ডেভলপমেন্ড এ্যাসোসিয়েশনের সদস্যবৃন্ধ, পুলিশ প্রশাসন ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ঢাকা-২০ আসনের (ধামরাই) সাংসদ এম এ মালেকের স্ত্রী মিনা মালেকের জমি দখল ও দূর্নীতির বিরুদ্ধে ১৫ নভেম্বর ২০১৭ইং তারিখে বেসরকারী টেলিভিশন চ্যানেল নাইনে একটি সংবাদ প্রচার করা হয়। এঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে গত বছরের ডিসেম্বরের ২৫  তারিখে চ্যানেল নাইনের বার্তা প্রধান আমিনুর রশীদ ও জেলা প্রতিনিধি অপু খন্দকারের বিরুদ্ধে সাংসদ এম এ মালেকের স্ত্রী মিনা মালেক বাদী হয়ে এই দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আদালতে মানহানি মামলা দায়ের করেন।






Related News

Comments are Closed