শারীরিক প্রতিবন্ধি তামান্নাকে হুইল চেয়ার প্রদান করলেন সাংবাদিক আয়ুব হোসেন পক্ষী

মোঃ রাসেল ইসলাম,শার্শা বেনাপোল প্রতিনিধি:পৃথিবীতে হাজারও প্রতিবন্ধি আছেন,যারা প্রতিনিয়ত জীবনের সাথে যুদ্ধ করে চলেছেন,এদের মধ্যে কাউকে দেখি মানসিক এবং কাউকে দেখি শারীরিক প্রতিবন্ধি। কিন্তু এমন কাউকে কি দেখেছেন যার তিনটি অঙ্গই জন্ম থেকে নেই,হ্যা,আমরা আজ তামান্নার কথাই আপনাদের মাঝে তুলে ধরবো,যার দুটি হাত এবং ডান পা জন্ম থেকে বিচ্ছিন্ন শুধুমাত্র সে তার বাম পা দিয়ে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। তামান্নার বয়স এখন ষোলো ছুঁই ছুঁই, সে এখন যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলার বাকঁড়া জোনাব আলী খান(জে,কে) মাধ্যামিক বিদ্যালয়ে দশম শ্রেনীর ছাত্রী,তার বাড়ী বাকঁড়ার আলীপুর গ্রামে,পিতার নাম রওশন আলী, বি,এস,সি পাশ করে একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে সামান্য বেতনে চাকুরী করেন। মা পেশায় একজন গৃহিনী, তামান্নার দুই ভাই বোন সে বড় এবং ভাই ছোট,বিষ্ময়ের ব্যাপার হলো সে তার বাম পা দিয়ে লেখা পড়া চালিয়ে পিএসসিতে এবং জেএসসিতে সম্মান সুচক নাম্বার পেয়ে উভয় পরীক্ষায় বৃত্তি পায়। শুধু শ্রেনী শিক্ষায় সে পারদর্শি হয়ে থেমে থাকেনি চিত্রাংকনও সে বিশেষ ভাবে অবদান রেখে চলেছেন।

এমন বহুরুপী প্রতিভাবান সন্তানের জন্য কে না চায়,এগিয়ে আসতে কেউ আসুক বা না আসুক একটি মাত্র মানুষ ঠিকই এগিয়ে এসেছেন। একটি হুউল চেয়ার প্রদান করে তামান্নার স্কুলে যাওয়ার প্রতিবন্ধিকতা দুর করে দিয়েছেন। কারন হুইল চেয়ারের অভাবে তার বাবা-মা তাকে কোলে করে প্রতিদিন স্কুলে নিয়ে যেতেন,আবার স্কুল শেষে বাসায় নিয়ে আসতেন এতে করে পিতা-মাতাকে অধিকাংশ সময় ব্যয় করেত হয়। তামান্নার পিছনে হুইল চেয়ারটি হওয়াতে দুজনের পরিবর্তে একজনই তার সাথে সময় দিতে পারবে। বিরল এই কর্মকান্ডের জন্য আমরা সাংবাদিক মোঃ আয়ুব হোসেন পক্ষীকে ধন্যবাদ জানাই। অমরা আশা রাখি সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয় এবং অধিদপ্তর গুলো বহুগুনের অধিকারী তামান্নার প্রতিভা গুলো বিকশিত করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন। সেই সাথে দেশের বিত্তবান ব্যাক্তিবর্গ অসহায় এই তামান্নার পাশে দাড়াবেন। এই প্রত্যাশা সকলের কাছে।

তামান্নার মায়ের হাতে হুইল চেয়ার তুলে দিচ্ছেন বন্দর প্রেসক্লাবের সদস্য ও দৈনিক খবরের আলো পত্রিকার বেনাপোল প্রতিনিধি মোঃ আয়ুব হোসেন পক্ষী,বন্দর প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক ও দৈনিক মাতৃছায়ার বেনাপোল প্রতিনিধি মোঃ সাহিদুল ইসলাম শাহীন, বন্দর প্রেসক্লাবের সদস্য ও দৈনিক দিন প্রতিদিন পত্রিকার শার্শা উপজেলা প্রতিনিধি মোঃ রাসেল ইসলাম,সদস্য ও সাপ্তাহিক সারশা বার্তা পত্রিকার বেনাপোল প্রতিনিধি মোঃ আরিফুল ইসলাম সেন্টু, দৈনিক স্বাধীন সংবাদ পত্রিকার বেনাপোল প্রতিনিধি মোঃ সেলিম রেজা তাজ, সাপ্তাহিক গ্রামের সংবাদ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার মোঃ সোহাগ হোসেন।






Related News

Comments are Closed