“শ্রাবণেও আগুন ঝরানো ঝাঁঝালো রোদ অতিষ্ঠ জনজীবন”

বর্ষার দিনে যেন আগুন ঝরানো রোদ একটু বৃষ্টি না হলেই রোদ যেন পেয়ে বসে ঘাম আর তীব্র গরমে তাই নগরবাসীর নাহজেহা দশা।গত কয়েকদিন থেকে নগরীতে বৃষ্টি নেই। তাতে বেড়েছে গরম। সোমবার রূপ নিয়েছে আরো তীব্র রূপে। সূর্য মাথায় নিয়ে কর্মস্থলগামী মানুষ ও পথচারীদের জীবন ওষ্ঠাগত।শ্রাবণেও গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন শুধু দিনের বেলাতেই নয়, রাতেও গরমে মানুষ ঘুমাতে পারছে না। সবচেয়ে বেশি কষ্ট হচ্ছে শিশু ও বয়স্ক মানুষদের। নারায়ণগঞ্জ সিদ্বিরগঞ্জসহ দেশের বিস্তীর্ণ এলাকার ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাওয়ার কারণে এই অস্বস্তিকর গরম অনুভূত হচ্ছে। এ তাপপ্রবাহ আরো কয়েক দিন অব্যাহত থাকবে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। শ্রাবণেও গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, আগামী ২/৩ দিনে বৃষ্টির সম্ভাবনা কম, তাই গরমে কষ্ট পেতে হবে আরো কয়েক দিন। অনেকেই গরম থেকে বাঁচতে ডাব, শরবতসহ বিভিন্ন পানীয় পান করছেন। এদিকে গরমে পেটের পীড়া, জ্বরসহ ছড়িয়ে পড়ছে নানা রোগও।আবাহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক আব্দুর রহমান বলেন, সূর্যের এমন তাপমাত্র আরও ২ থেকে ৩ দিন থাকবে। বর্ষাকালে সূর্য সাধারণত খাঁড়াভাবে থাকে, এ কারণে তাপমাত্র বেশি। বৃষ্টি হলে তাপমাত্র কমে যায়। তাছাড়া সাগরে লঘুচাপের কারণেও তাপমাত্রা একটু বেশি জানান তিনি ।






Related News

Comments are Closed